adimage

২১ অক্টোবর ২০২০
বিকাল ১০:৩৮, বুধবার

নবাবগঞ্জে পাওনা টাকা চাওয়ায় ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত

আপডেট  10:21 AM, সেপ্টেম্বর ১৭ ২০২০   Posted in : আঞ্চলিক দোহার-নবাবগঞ্জের সংবাদ    

নবাবগঞ্জেপাওনাটাকাচাওয়ায়ব্যবসায়ীকেপিটিয়েআহত

সিনিয়র প্রতিবেদক:

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় এক মুদি ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করেছে দেনাদার। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার কলাকোপা ইউনিয়নের কাশিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত মুদি ব্যবসায়ী আহাদ হোসেন উজ্জল (২৬) উপজেলার ওই ইউনিয়নের পীরমাহমুদিয়া গ্রামের হারুনের ছেলে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ব্যবসায়ীর মা শিল্পী আক্তার জানান, উজ্জলের মুুদি ও গ্যাসের দোকান রয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টার দিকে কাশিমপুর গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে মনির (৪৫) দোকানে এসে উজ্জলের নিকট একটি গ্যাস বাকি চায়। এসময় উজ্জল মনিরের কাছে ৮/৯ মাস পূর্বের পাওনা আড়াই হাজার দাবি করেন। পাওনা টাকা না দিলে গ্যাস দিবে না বলে জানান। এ কথ শুনে মনির উজ্জলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায় মনির ও তার সঙ্গে থাকা পীরমাহমুদিয়া গ্রামের রফিকের ছেলে জয়নাল ওরফে জনা লোহার রড ও জিআই তার দিয়ে উজ্জলকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করে। এসময় তিনি তার ছেলেকে যারা হত্যার উদ্দেশ্যে এভাবে মেরেছে তাদের শাস্তি দাবি করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত মেডিকেল অফিসার ডা: রুহুল আমিন জানান, আহত উজ্জলকে ভর্তি রাখা হয়েছে। এলোপাথারি আঘাতে তার মাথার ৪/৫ জায়গায় ফেঁটে গেছে। এছাড়াও বাম কানের একটু উপরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর প্রয়োজন হতে পারে।

নবাবগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এসআই পলি আক্তার জানান, এ ঘটনায় আহতের মা শিল্পী আক্তার একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত  সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul